Home
Text size A A A
Color C C C C

প্রফেসর মাহমুদা খাতুন

প্রফেসর মাহমুদা খাতুন

প্রফেসর মাহমুদা খাতুন ১৯৬৪ খ্রিষ্টাব্দের ২রা মে টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ার উপজেলার গোয়ারিয়া গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। তার পিতা প্রয়াত মোহাম্মদ আলী ছিলেন ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক-তিনি টাঙ্গাইল জেলার বিভিন্ন উচ্চবিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মাতা রাজিয়া বেগম পেশায় একজন গৃহিনী। প্রফেসর মাহমুদা খাতুনের স্বামী জনাব মোঃ আতিকুল ইসলাম একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পদস্থ কর্মকর্তা।
শিক্ষা জীবনে সফলতার পরিচয় বহনকারী প্রফেসর মাহমুদা খাতুন টাঙ্গাইল জেলার ডাঃ এফ আর খান পাইলট হাইস্কুল থেকে ১৯৮০ সালে প্রথম বিভাগে মাধ্যমিক এবং ১৯৮৩ সালে কুমুদিনী সরকারি কলেজ থেকে দ্বিতীয় বিভাগে এইচ এস সি পাস করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে ভর্তি হন। অতপর তিনি ১৯৮৬ সালে বাংলায় স্নাতক (সম্মান) এবং ১৯৮৭ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন। তিনি স্নাতক(সম্মান) ও স্নাতকোত্তর উভয় পরীক্ষায় ২য় শ্রেণিতে ১ম স্থান অধিকার করেন।
প্রফেসর মাহমুদা খাতুন ১৪শ বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে যোগদান করেন। তিনি প্রভাষক, সহকারী অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক ও অধ্যাপক হিসেবে বিভিন্ন সময়ে যথাক্রমে শেরপুর সরকারি কলেজ, ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ, কুমুদিনী সরকারি কলেজ, টঙ্গী সরকারি কলেজ,  সরকারি তিতুমীর কলেজ, ঢাকা ও হরগঙ্গা সরকারি কলেজ, মুন্সীগঞ্জে দায়িত্বপালন করেন। ভাসানটেক সরকারি কলেজ, ঢাকায় অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদানের পূর্বে তিনি জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি(নায়েম)এ প্রশিক্ষণ বিশেষজ্ঞ হিসেবে কর্মরত ছিলেন। 
২রা মার্চ, ২০১৭ তারিখে ভাসানটেক সরকারি কলেজ, ঢাকায় অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্বগ্রহণ করে অদ্যাবধি এ প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন। তার বিচক্ষণ প্রশাসনিক দক্ষতা ও প্রজ্ঞায় ইতোমধ্যে কলেজটির একাডেমিক ও প্রশাসনিক ক্ষেত্রে প্রভূত উন্নয়ন সাধিত হয়েছে।
বইপড়া ও ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্বুদ্ধকরণ করা ছাড়াও বিভিন্ন সাংগঠনিক কর্মকান্ডে তাদের যুক্ত রাখতে চেষ্টা করে যাচ্ছেন। বর্ণাঢ্য কর্মজীবনে তিনি অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রীর প্রিয় ও আদর্শ শিক্ষক হিসেবে স্থান করে নিয়েছেন।